1. admin@channel21tv.com : channel21tv.com :
মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৪:৩৭ অপরাহ্ন

ঈদ শেষে কর্মজীবী মানুষগুলোর এবার কর্মস্থলে ফেরার পালা:

রিপন কান্তি গুণ, নেত্রকোনা, বারহাট্টা প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : রবিবার, ৮ মে, ২০২২
  • ৮ বার পঠিত

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে গত (০৩ মে) নারীর টানে বাড়ি ফেরা মানুষগুলো এবার ফিরছে নিজের কর্মস্থলে। জীবিকার তাগিদে প্রথম কর্ম দিবসকে সামনে রেখে হুমড়ি খেয়ে পড়েছেন সবাই ঢাকার পথে। ঈদ পরবর্তী যাত্রা শুরু হয়েছে ঈদের পরদিন থেকেই। আবার অনেকেই ছুটির শেষ দিনটিও পরিবার পরিজনসহ প্রিয়জনদের সাথে কাটিয়ে একেবারে প্রথম কর্মদিবস রবিবারকে সামনে রেখেই কর্মস্থলে ফিরছেন। আবার অনেকে টিকিট এবং যানবাহন সংকটেও দেরিতে পড়েছেন।

নেত্রকোনার আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল ঘুরে দেখা গেছে উপচে পড়া ভিড়। দিনভর ট্রাক, বাস, পিকাআপ ভ্যান মাইক্রোসহ বিভিন্ন যান বাহনে চড়ে ফিরছেন কর্মজীবিরা। অনেকইে রাত থেকেই রওয়ানা দিয়েছেন যার যার গন্তব্যের উদ্দেশ্যে। যার যেমন সামর্থ্য সে অনুযায়ী বাহনে চড়েই যাচ্ছেন। রবিবার থেকেই সকল অফিস আদালত, সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্টানসহ গার্মেন্টস গুলো পুরোদমে খুলে দেয়া হবে। এমতাস্থায় লম্বা ছুটি শেষে আবারো কর্মমূখী হচ্ছেন এ জেলার লাখো মানুষ।

আন্তজেলা বাসটার্মিনাল, রেলস্টেশন সব জায়গাতেই উপচে পড়া ভিড়ে হিমশিম খাচ্ছেন যানবাহন সংশ্লিষ্টরা। এই সুযোগে বাড়তি টাকাও হাতিয়ে নিচ্ছে পরিবহন ব্যবসায়ী ও রেলস্টেশনের কতিপয় কিছু দালাল চক্র।  যাত্রীরাও বাধ্য হয়েই ভাড়ার অতিরিক্ত টাকা দিয়ে টিকিট সংগ্রহ করছেন। অনেকে আবার একটু নির্বিঘ্নে যেতে বেশ কয়েকজন একসাথে হয়ে প্রাইভেট মাইক্রো ভাড়া নিচ্ছেন। এদিকে যানযট কমিয়ে রাখতে সার্বক্ষনিক তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে জেলা ট্রাফিক বিভাগ।

নেত্রকোনা জেলার ট্রাফিক ইনচার্জ মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন কাজল জানান, ঈদে বাড়ি আসা প্রতিটি মানুষের কর্মস্থলে ফেরার আগ পর্যন্ত তারা ভোগান্তি নিরশনে তৎপরতা অব্যাহত রাখবেন বলে নিশ্চিত করেছেন। কোথাও যাতে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেই দিকেও লক্ষ্য রাখছেন তারা।

জেলার বিভিন্ন্ উপজেলা কলমাকান্দা, দুর্গাপুর, মোহনগঞ্জ থেকে আসা নারায়ণগঞ্জ যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হওয়া আতিক মিয়া, সোহেল হাসান এবং গাজীপুরগামী রুবেল শেখসহ অসংখ্য যাত্রী পিকাপ ভ্যানে চরে রওয়ানা দিয়েছেন। তারা জানান, রবিবার থেকে সব গামেন্টস খুলে দেয়া হবে, সময়মত কর্মস্থলে পৌঁছতে না পাড়লে অনেকের চাকুরি থাকবে না আবার অনেকের বেতন বোনাস কেটে নেয়া হবে। তাই যে করেই হোক কর্মস্থলে ফিরতে হবে।

ঢাকাগামী যাত্রী বারহাট্টার শফিকুল ইসলাম জানান, তিনি একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকুরি করেন। সকালে কর্মস্থলে উপস্থিত না হলে চাকুরির সমস্য হবে। দীর্ঘদিন পর লম্বা ছুটিতে পরিবার পরিজন নিয়ে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি শেষে এখন কর্মজীবনে ফিরছি। তবে অতিরিক্ত যাত্রী চাপে টিকিট নিয়ে বাসে উঠা অনেকটাই দুস্কর। সেইসাথে বাসের ভাড়া বেশি হওয়ায় অল্প ভাড়ায় ট্রাকে চড়েই রওনা হয়েছি।

পিকআপ ভ্যান চালক সিদ্দিক মিয়াসহ একাধিক চালকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, শুক্রবার বিকেল থেকেই যাত্রীদের চাপ অনেক বেড়েছে। শাহজালাল বাস কাউন্টারসহ বিভিন্ন কাউন্টারে ঘুরে দেখা গেছে, ঢাকাগামী প্রতি টিকিট বিক্রি হচ্ছে ৩৫০ টাকা থেকে ৪’শ টাকায়। যদিও সংশ্লিষ্টরা বলছেন ভাড়া বাড়ানো হয়নি। এ ছাড়াও ট্রেন চলাচলের ক্ষেত্রে আন্তঃনগরসহ লোকাল প্রতিটি ট্রেনেই ছিলো উপচে পড়া ভিড়। ছাদে বসেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অসংখ্য মানুষকে চড়তে দেখা গেছে।

রিপন কান্তি গুণ

নেত্রকোনা, বারহাট্টা প্রতিনিধি;

মোবাইল : 01723-632594

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো কিছু জনপ্রিয় সংবাদ

  • © All rights reserved © 2021 Channel21tv.Com
Design & Development By Hostitbd.Com