1. admin@channel21tv.com : channel21tv.com :
শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০১:০৯ অপরাহ্ন

বহুল প্রতিক্ষিত ফেরির অনুমোদন পেল হাওরবাসীl

রিপন কান্তি গুণ, বারহাট্টা উপজেলা প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৭১ বার পঠিত

নেত্রকানা জেলা থেকে বিচ্ছিন্ন একটি হাওর অঞ্চলের উপজেলা খালিয়াজুরী। জেলা শহর থেকে ঐ উপজেলার দূরত্ব প্রায় ৬০ কিলামিটার। বছরের আট মাস পানিবন্দি জীবন কাটাতে হয় ঐই এলাকার  বাসিন্দাদের। এ অবস্থায় জেলা শহরের সঙ্গে উপজেলাবাসীর যোগাযোগ ব্যবস্থা স্থাপন করতে অনেক চেষ্টা করা হলেও, ধনু নদে কোনো সেতু না থাকায় সে চেষ্টা ব্যর্থ হয়। 

সম্প্রতি সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন খালিয়াজুরী উপজেলা নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে এবং সংবাদপত্রে খবর প্রকাশিত হলে, তা কোন কাজে আসেনি। অবশেষ ! খালিয়াজুরীর কৃতিসন্তান ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী জনাব, মোস্তাফা জব্বার তার উপজেলাবাসীকে ফেরি বরাদ্দের সুখবর প্রথম দেন।

তিনি বলেন, অনেকদিন ধরে, চেষ্টা করছিলাম ধনু নদীতে একটি ফেরির ব্যবস্থা করতে। অবশেষ আজ (১৮ জানুয়ারি) মঙ্গলবার সেই ফেরিটির অনুমোদন হলো।

ফলে দীর্ঘ দিনের সমস্যার অবসান হতে যাচ্ছে । ওই উপজেলাকে বিচ্ছিন্ন করে প্রবাহিত হওয়া ধনু নদের জন্য বরাদ্দ হয়েছে একটি ফেরি। ফেরিটি রসূলপুর ঘাটে পৌঁছালে যেকোনো যানবাহনে পৌঁছানো যাবে খালিয়াজুরী উপজেলা শহরে। এই খবরে খুবই খুশি হাওরাঞ্চলের বাসিন্দারা।

খালিয়াজুরী উপজেলা নিবার্হী কর্মকতা (ইউএনও) এএইচএম আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘ধনু-নদের জন্য দীর্ঘ দিন এই উপজেলা শহর বিচ্ছিন্ন ছিল। জরুরি প্রয়োজন বা কোনো প্রসূতি মাকে নিয়ে জেলা শহরে যেতে পারেনি স্থানীয়রা। রসুলপুর ঘাটে ফেরি সার্ভিস চালু হলে জেলা সদর, বিভাগ কিংবা রাজধানীর সঙ্গে খালিয়াজুরীর সার্বক্ষণিক যোগাযোগ স্থাপিত হবে।

ফেরি চালু হওয়ায়, খালিয়াজুরী থেকে জেলা সদর পর্যন্ত সরাসরি বাস সার্ভিস চালু করা যাবে। সিএনজিচালিত অটোরিকশা, প্রাইভেটকার নিয়ে খুব সহজেই পৌঁছা যাবে খালিয়াজুরীতে। এ ছাড়া কৃষিনির্ভর এ এলাকার কৃষকদের পণ্য পরিবহন সহজ হবে।

নেত্রকানা সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকোশলী হামিদুল ইসলাম বলেন, খালিয়াজুরী উপজেলার রসুলপুর ঘাটে ধনু নদে একটি ফেরি সার্ভিস চালু করার নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানতে পেরেছি। আশা করছি খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে সেটির বরাদ্দ হবে।

প্রসঙ্গত, এর আগে খালিয়াজুরীর শিক্ষার্থীদের ফাইজার টিকা সরবরাহ করতে গত বুধবার (১২ জানুয়ারি) স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) একটি লাল রঙের গাড়ি এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কালো রঙের চার চাকার গাড়ি দুটি নিয়ে আসা হয়। তবে এর আগে, এ উপজেলা শহরে কখনো চার চাকার কোনো গাড়ি প্রবেশ করেনি। গাড়ি দুটির বরাদ্দ আগে থেকেই থাকলেও সড়ক যোগাযোগ না থাকায় তারা গাড়িগুলো কর্মস্থলে নিয়ে যেতে পারেননি। শিক্ষার্থীদের টিকা পরিবহন করতে অবশেষে, তারা ওই দুটি গাড়ি সেখানে নিয়ে যান।

ধনু নদ পাড় করতে গাড়িগুলোর জন্য কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলা থেকে একটি বড় নৌকা আনা হয়। তারপর অনেক ঝামেলা শেষে গাড়ি দুটিকে খালিয়াজুরী উপজেলা শহরে নিয়ে যাওয়া হয়। আর প্রথমবারের মতো শহরে চার চাকার গাড়ি দেখে অবাক হয় খালিয়াজুরীর মানুষ।

 

রিপন কান্তি গুণ

নেত্রকোনা,বারহাট্টা প্রতিনিধি । 

মোবাইল : 01723-632594

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো কিছু জনপ্রিয় সংবাদ

  • © All rights reserved © 2021 Channel21tv.Com
Design & Development By Hostitbd.Com